1. admin@dainikjamunaexpress.com : admin :
শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৮:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বেলকুচিতে শিশু সন্তানসহ পৌর মেয়র উপর হামলার এমপির এপিএসসহ ৬০জনের বিরুদ্ধে মামলা কাজিপুরে শিক্ষকের হাতে ধর্ষিত প্রতিবেশী নারী কুষ্টিয়ায় আনসার নিয়োগ ডিউটিতে কোটি টাকার বাণিজ্য সিরাজগঞ্জে কাভার্ডভ্যান ভর্তি গাঁজাসহ দুই মাদক কারবারীকে আটক করেছে র‌্যাব বেলকুচিতে সাংবাদিকের উপর হামলা,মুঠোফোন ছিনিয়ে নিয়ে যায় সংবাদ প্রকাশ করলে প্রাণনাশের হুমকি সিরাজগঞ্জে প্রতি নিয়ত মানবতার দৃষ্টি স্থাপন করছেন পুলিশ সদস্য শামীম রেজা বেলকুচিতে পৌর মেয়রের ওপর হামলা শিশু, সংবাদকর্মীসহ আহত ৫ সিরাজগঞ্জে ভিক্টোরিয়া হাইস্কুলে শিক্ষার্থীদের নিয়ে মাদকবিরোধী আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত দুস্থ মহিলা ও শিশু কল্যাণ বোর্ডের সদস্য হলেন সাবেক এমপি সেলিনা বেগম স্বপ্না জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা সিরাজগঞ্জ জেলা শাখার অভিষেক অনুষ্ঠিত

কাজিপুরে সেচ পাম্প চুরি আতঙ্কে কৃষক,চোর শনাক্ত হলেও প্রতিকার মেলেনি গ্রাম আদালতে।

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ১১৪ বার পড়া হয়েছে
মিজান রহমানঃ কাজিপুর(সিরাজগঞ্জ)  সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার মনসুরনগর ইউনিয়নে পানির সেচ পাম্প  চুরির আতঙ্কে দিশেহারা হয়ে পড়েছে স্হানীয় জনসাধারণ। ইতোমধ্যেই চুরি যাওয়া সেচ পাম্প  উদ্ধারে পুলিশি সহায়তা চেয়ে কাজিপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে ভুক্তভোগী কৃষক রফিকুল ইসলাম।
৪ই সেপ্টেম্বর(সোমবার) দুপুরে উপজেলার মনসুরনগর ইউনিয়নের আলহাজ্ব হাবিবুর রহমানের ছেলে রফিকুল ইসলাম সহ আরও কয়েকজন ভুক্তভোগী কৃষক কাজিপুর থানায় হাজির হয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগে মনসুরনগর ইউনিয়নের হাফিজুর রহমানের ছেলে সুমন মিয়া, মৃত আব্দুল শেখের ছেলে আশরাফ আলী, মোঃ রইচ এর ছেলে শাহাদাত, নইমুদ্দিনের ছেলে হাফিজুর সহ আরও ২/৩ জনকে অজ্ঞাত নামা করে অভিযোগ দায়ের করা হয়।
অভিযোগ ও সরেজমিন ঘুরে জানা যায়,গত ২রা এপ্রিল অভিযোগ দায়েরকারী রফিকুল ইসলাম সহ আরও কয়েকজন কৃষকের সেচ পাম্প হারিয়ে যায়, সেচ পাম্প চুরির আতঙ্কে এলাকায় চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে কয়েকজন চোরকে শনাক্ত করে স্হানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে হাজির করা হয়,গ্রাম্য আদালতে বিচারের দিন তারিখ ধার্য্য হলে সংঘবদ্ধ চোরচক্র হাজির না হয়ে টালবাহানা শুরু করে, কোন উপায়ন্তর না পেয়ে চুরি যাওয়া সেচ পাম্প উদ্ধারে অবশেষে কাজিপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগীরা।
ভোগান্তির শিকার ও স্হানীয় কৃষক আশরাফুল ইসলাম বলেন,”এই পর্যন্ত প্রায় ১০টি চুরি হওয়া মটর উদ্ধার হয়েছে।চোর শনাক্ত হয়েছে,মুরব্বিদের সামনে দোষ স্বীকার করেছে কিন্তু বিচার হচ্ছে না”।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে মনসুর নগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক রাজমহর বলেন, “চোর চক্রের অভিভাবকরা আমার কাছে এসেছে দোষ স্বীকার করেছে। তাদের অভিভাবকরা বলছে চোর চক্রের সদস্যরা এলাকায় না থাকায় তাদের হাজির করতে দেরী হচ্ছে”।
অভিযোগ বিষয়ে জানতে চাইলে কাজিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শ্যামল দত্ত জানান,” আমি সাক্ষীর কাজে টাঙ্গাইল গিয়েছিলাম,থানায় অভিযোগ হয়েছে কিনা জানি না,অভিযোগ হলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে”।
এদিকে কোন প্রতিকার না পেয়ে চুরি আতঙ্কে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছে সাধারণ কৃষক,সারাদিন হাঁড়ভাঙা খাঁটুনি শেষে সেচ পাম্প চুরি আটকাতে পালাবদল করে রাতের পর রাত জেগে পাহারা দিচ্ছে কৃষক।সাধারণ মানুষের চাওয়া অচিরেই মিলবে সমাধান। আবারও নিশ্চিতে ঘুমাতে পারবে কৃষক।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
এই নিউজ পোর্টালের কোন ছবি বা তথ্য বিনা অনুমতিতে হস্তান্তর নিষেধ। সর্বস্বত্ত্ব www.jamunaexpress.com কর্তৃক সংরক্ষিত
Theme Customized By BreakingNews