1. admin@dainikjamunaexpress.com : admin :
বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ০১:১৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
সিরাজগঞ্জে বিশ্ব মৌমাছি দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে র‍্যালি প্রদর্শন ও কর্মশালা অনুষ্ঠিত ধর্ষক শিক্ষকের হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছেন না প্রতিবেশী এক নারী কুষ্টিয়া জেলা আ’লীগের সভাপতিকে কারণ দর্শানোর নোটিশ নবীজীকে কটুক্তি,  হিন্দু পাড়ায় দুটি বাড়িতে আগুন সংঘর্ষে পুলিশসহ অর্ধশতাধিক আহত বেলকুচিতে অগ্নিকান্ডে বসত বাড়ির তিনটি ঘর পুড়ে ছাই সিরাজগঞ্জ পৌরসভার কর্মচারী ইউনিয়নের সাথে মেয়র এর ফুলেল শুভেচ্ছা সিরাজগঞ্জে ভাষায় লিঙ্গীয় বৈষম্য নিয়ে গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভা বেলকুচিতে সাংবাদিকের উপর হামলা,মোবাইল প্রেস কার্ড ছিনিয়ে নিয়ে প্রাণনাশের হুমকিদেন গণমাধ্যম কর্মীদের-থানায় মামলা বাগবাটি রাজিবপুর অটিস্টিক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী স্কুলে হুইল চেয়ার বিতরণ বেলকুচিতে পৌর মেয়রসহ তার শিশু সন্তানকে হত্যার উদ্দেশ্য হামলা,হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল

সিরাজগঞ্জে ঈদকে সামনে রেখে কর্মমুখর তাঁতপল্লী

  • প্রকাশিত : রবিবার, ৩১ মার্চ, ২০২৪
  • ৩৪ বার পড়া হয়েছে

মো:ছাম্মি আহামেদ আজমীর: পবিত্র ঈদুল ফিতর ও পহেলা বৈশাখ কে সামনে রেখে কর্মমুখর হয়ে উঠেছে সিরাজগঞ্জের তাঁতপল্লী গুলো। কাক ডাকা ভোর থেকে শুরু করে গভীর রাত পর্যন্ত ব্যস্ত সময় পার করছেন তাঁত শ্রমিকরা। অন্যান্য সময় কিছুটা মন্দাভাব থাকলেও এখন যেন দম ফেলার ফুরসত নেই। এদিকে ব্যবসায়ীরা বলছেন রং এবং সুতার দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় আশানুরূপ লাভ পাচ্ছেন না তারা।

রবিবার (৩১ মার্চ) সকালে সিরাজগঞ্জের সদর উপজেলার বাউইতরা এলাকায় ঘুরে দেখা যায়,ঈদকে সামনে রেখে জামদানী,সামার,জলছাপ,কাতান তৈরি করছেন তাঁতীরা। এই সব শাড়ী জেলার চাহিদা মিটিয়ে চলে যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন স্থানে। প্রতিদিনই খুচরা ও পাইকারী ব্যবসায়ীরা এসে ভিড় করছেন তাঁত কাঁরখানাগুলোতে।

তাঁত ব্যবসায়ি আব্দুল গফুর জানান, বছরের অন্য সময় তেমন কাজ না থাকলেও ঈদকে সামনে রেখে আমাদের কাজ অনেক বেড়ে গেছে। এবার অর্ডারও বেশি কাজও বেশি।

তাঁত শ্রমিক মোতালেব হোসেন সহ আরো কয়েকজন শ্রমিক জানান, কয়েকদিন হলোই আমাদের কাজ বেড়ে গেছে। বিভিন্ন জেলা থেকে পাইকাররা আসতে শুরু করেছে। আশা করছি এবার আমাদের কাজে বেশ লাভবান হতে পারবো। আমরা রাত দিন পরিশ্রম করে যাচ্ছি।

বেলকুচি উপজেলা হস্ত ও পাওয়ারলুম এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক শ্রী বৈদ্যনাথ রায় জানান, এবার আমাদের ঈদের প্রস্তুতি বেশ ভালো। তবে রং ও সুতার দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় আশানুরূপ লাভ পাচ্ছে না ব্যবসায়ীরা। তারপরও আমরা আশাবাদী এবার ঈদে ভালো ব্যবসা হবে।

সিরাজগঞ্জ জেলায় ১লাখ ৩৫ হাজার তাঁতশিল্পের উপর ১৪হাজার ৮৭০ টি পরিবার নির্ভরশীল।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
এই নিউজ পোর্টালের কোন ছবি বা তথ্য বিনা অনুমতিতে হস্তান্তর নিষেধ। সর্বস্বত্ত্ব www.jamunaexpress.com কর্তৃক সংরক্ষিত
Theme Customized By BreakingNews